আসন্ন বাজেটে বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারীদের জন্য বিশেষ বরাদ্দ করার দাবী

1037

আসন্ন বাজেটে বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারীদের জন্য বিশেষ বরাদ্দ করার দাবী

বর্তমান করোনার এই মহাদুর্যোগে দেশের বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারীগণ খুবই আর্থিক সংকটে পড়েছেন।শুধু সরকারের দেয়া বেতন স্কেলের ১০০ % থেকে কল্যাণ ও অবসরের নামে ১০% কর্তন বাদে প্রাপ্ত ৯০% অনুদানে এই দুর্মূল্যের বাজারে জীবন ও জীবিকা চালানো কত খুব দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে।

🌿🌿🌿🌿🌿🌿🌿🌿🌿🌿🌿🌿🌿🌿🌿🌿🌿🌿

📍📍প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, বিশ্ব বিদ্যালয়, মেডিকেল, ও প্রকৌশল বিশ্ব বিদ্যালয় সহ শিক্ষা বিষয়ক সব ধরণের নির্ভরযোগ্য খবরাখবর সবার আগে পেতে এখানে ক্লিক করে দৈনিক শিক্ষা সংবাদ পেইজে ঢুকে ” LIKE PAGE ” 👍 এ লাইক দিন।

☘️🍀☘️🍀☘️🍀☘️🍀☘️🍀☘️🍀☘️🍀☘️🍀☘️🍀

📌📌আপনি কি চান শিক্ষা জাতীয়করণ হোক? শিক্ষায় বৈষম্য দূর হোক? শিক্ষকদের অধিকার আদায় হোক? তো দেরি কেন? এখুনি জয়েন্ট করতে ক্লিক করুন শিক্ষা গ্রুপে। আপনিও লিখুন, মতামত দিন, কমেন্ট করুন, লাইক দিন শেয়ার করুন।

🌴🌴🌴🌴🌴🌴🌴🌴🌴🌴🌴🌴🌴🌴🌴🌴🌴🌴

এতদিন কোন কোন প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষার্থীদের প্রদেয় বেতন হতে যৎসামান্য পাওয়া গেলেও এখন এই করোনার দুর্দিনে কোন প্রতিষ্ঠানই তা দিতে পারছেনা।কারণ,কোন শিক্ষার্থীই এখন আর তাদের বেতন পরিশোধ করতে পারছে না,করোনার এই মহাদুর্যোগ যেহেতু কেটে যাবার সম্ভাবনা ক্ষীণ তাই সামনের দিনগুলোতেও আর সম্ভব হবেনা।
প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব খরচাদি মেটানো এখন হয়ত অনেক প্রতিষ্ঠানকে শিক্ষকদের এমপিও এর টাকা থেকে মেটানো ছাড়া কোন পথ থাকবেনা।
বর্তমান বাজরে পণ্য সামগ্রির দাম সম্বন্ধে সবাই অবগত।শিক্ষক সম্প্রদায় যে শুধু স্কেলের মূল বেতনের ৯০% দিয়ে জীবন কাটায় তা একটু সদয় বিবেচনা আনার জন্য আমি সদাশয় সরকারের কর্তৃপক্ষকে সবিনয় অনুরোধ করবো।
প্রাইভেট টিউশনের ব্যবস্থাও সম্ভব নয়।অথচ করোনাকালীন শিক্ষকগণ কিন্তু বসে নেই।তারা অনলাইন ক্লাস পরিচালনা করেই যাচ্ছে।এক্ষেত্রে প্রত্যেকেরই প্রতিদিন অনলাইনের জন্য টাকা খরচ করতে হচ্ছে।
করোনার এই সময়ে প্রতিষ্ঠানে যাতায়াত ও সুরক্ষা ব্যবস্থার খরচও আগের থেকে অনেক বেশি। বর্তমানে পরিবহন বাড়াও দ্বিগুণ হয়ে যাচ্ছে।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার করোনাকালীন প্রণোদনা শিক্ষকগণ কিছুই পায়নি।
অথচ শিক্ষক সম্প্রদায় এই মহা দুর্যোগে শিক্ষার্থীদের নিয়ে তাদের শিক্ষা কার্যক্রম এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।
দেশের সার্বিক শিক্ষা উন্নয়নের ৯৬ ভাগ দায়িত্বই বেসরকারি শিক্ষকগণ যথাযথভাবে পালন করে আসছে। সারাদেশে যেকোন পাবলিক পরীক্ষার সন্তোষজনক ফল ও পাসের হার নিয়ে যে আনন্দ উল্লাস তা বেসরকারি শিক্ষকদেরই পরিশ্রম ও আন্তরিকতার ফসল। আমাদের দেশের এই বেসরকারি শিক্ষকগণই ইনশাল্লাহ UNESCO ঘোষিত SDG এর quality education সন্তোষজনক হারে উন্নীত করবে।
তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী,অর্থমন্ত্রী ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি সবিনয় অনুরোধ থাকবে সুশিক্ষায় উন্নত বাঙালি জাতির স্বপ্নদ্রষ্টা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের এই বাংলাদেশে জাতির বিবেক বলে বিবেচিত শিক্ষকদের জন্য আসন্ন বাজেটে বিশেষ বরাদ্দ করবেন।

লেখক..
মো.মতলব হুসেন
অধ্যক্ষ,
কাঁচকুড়া কলেজ,উত্তর খান,ঢাকা ও
সহসভাপতি,
বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারী ফোরাম।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Facebook Comments