এবছর বাংলা নববর্ষের সব অনুষ্ঠান বাতিল করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

424

এবছর বাংলা নববর্ষের সব অনুষ্ঠান বাতিল করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

করোনা পরিস্থিতিতে এ বছর বাংলা নববর্ষের অনুষ্ঠান না করার নির্দেশ দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে জনসমাগম আরো বড় বিপদ ডেকে আনতে পারে। আমাদের বাংলা নববর্ষের উৎসবে এ বছর জনসমাগম হয় তেমন কিছু করা উচিত হবে না। তবে ডিজিটাল ব্যবস্থায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা যেতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, নববর্ষ আমাদের প্রাণের উৎসব। অত্যন্ত উৎসাহ ও জাঁকজমকপূর্ণ উৎসবের মাধ্যমে আমরা এই অনুষ্ঠান পালন করে থাকি। কিন্তু এ বছর আপনারা জানেন, আমরা ১৭ মার্চ ও ২৬ মার্চের সব অনুষ্ঠান সীমিত করেছি। কোনো ধরনের জনসমাগম যেন না হয়, আমরা সে নির্দেশনা দিয়েছি। নববর্ষের জন্যও একই নির্দেশনা থাকবে।’

বাইরে অনুষ্ঠান না করতে পারলেও বাংলা নববর্ষে ডিজিটাল প্রযুক্তির সহায়তায় অনুষ্ঠান করে সবার মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ‘আমাদের স্কুল-কলেজ বন্ধ। কিন্তু সংসদ টিভির মাধ্যমে আমরা ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাস করার সুযোগ করে দিয়েছি। ঠিক একইভাবে ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করেও আপনারা গান-বাজনা করতে পারেন। ডিজিটাল মাধ্যমে অনুষ্ঠান করে সবার মধ্যে ছড়িয়ে দিন।’

প্রধানমন্ত্রী এসময় আরও বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমার নিজেরও অনেক কষ্ট লাগছে। কারণ আমরাই এই উৎসব শুরু করেছিলাম। এই উৎসব জাঁকজমকপূর্ণভাবে না হওয়াটা কষ্টের। তবু এখনকার ঝুঁকি বিবেচনায় নিয়ে কেউ উৎসব করবেন না।’

এছাড়া জনগণের সুরক্ষা নিশ্চিন্তে বাড়ানো হবে সরকারি ছুটি বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। করোনাভাইরাস প্রতিরোধের লক্ষ্যে চলমান কার্যক্রম সমন্বয় করতে ৬৪ জেলার সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে এমন তথ্য জানান প্রধানমন্ত্রী। এসময় তিনি বলেন, সচেতনতা তৈরি করা গেছে বলেই করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এছাড়া করোনা মোকাবেলায় সবরকম ব্যবস্থা নিয়েছে সরকার বলে জানান তিনি।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Facebook Comments