তিনটি শর্তে অনলাইনে পাঠদান শুরু করতে কড়া নির্দেশ মাউশির

1582

তিনটি শর্তে অনলাইনে পাঠদান শুরু করতে কড়া নির্দেশ মাউশির

নিজস্ব প্রতিবেদক: অনলাইনে পাঠদান শুরু করতে সরকারি কলেজগুলোকে দ্বিতীয় দফায় নির্দেশনা দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর (মাউশি)। এ আদেশ অমান্য করাকে প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসনবিরোধী বলে উল্লেখ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার মাউশি থেকে এ নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

                ⭕   🌴 ☘️  ☘️ ☘️ 🌴⭕

📍📍শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের হৃদয়ের স্পন্দন…প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল, ও প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় সহ শিক্ষা বিষয়ক সব ধরণের নির্ভরযোগ্য খবরাখবর সবার আগে পেতে ক্লিক করুন নিচে…  

 ☘️দৈনিক শিক্ষা সংবাদ পেইজে 👍লাইক দিন 

👉 জয়েন্ট করুন 🌿 শিক্ষা গ্রুপ✅

               🌿  🌴 🌿    🔴 🔴 🌿   🌴

নির্দেশনায় বলা হয়, কোভিড-১৯ বৈশ্বিক সংকটের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে। এজন্য উচ্চ মাধ্যমিকসহ ডিগ্রি, অনার্সসহ সব কোর্সের শিক্ষার্থীরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। সেজন্য মাউশির পক্ষ থেকে অনলাইনে ক্লাস গ্রহণের জন্য বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হলেও অনেক প্রতিষ্ঠান এখনো তা অনুসরণ করেনি। এটি প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসনবিরোধী বলে মনে করা হচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে শিক্ষার্থীদের অনলাইনে ক্লাস গ্রহণে উদ্যোগী ভূমিকা গ্রহণ একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক। ফলে শিক্ষার্থীরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেজন্য প্রচলিত কারিকুলাম ও সিলেবাস অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট বিষয়ে অনলাইনে ক্লাস গ্রহণের জন্য পুনরায় আহ্বান জানানো হয়েছে। অনলাইনে গ্রহণকৃত ক্লাসগুলো প্রতিষ্ঠানপ্রধানরা যাচাই-বাছাই পূর্বক তা মনোনীত করে ddgovtcollege1@gmail.com এ ঠিকানায় আপলোড করতে বলা হয়েছে।
নির্দেশনায় আরও বলা হয়, কলেজ থেকে শিক্ষকদের করা ভিডিও ক্লাসগুলো মাউশির ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করা হবে। এসব ক্লাসে দেশের শিক্ষার্থীরা উপকৃত হবে। এ জন্য তিনটি শর্ত জুড়ে দেওয়া হয়েছে। সেগুলো হচ্ছে কোনো প্রকার ধর্মীয় উস্কানিমূলক, সাম্প্রদায়িক মনোভাবাপন্ন সংলাপ, ছবি বা কনটেন্ট ব্যবহার না করা, মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতাবিরোধী কোনো কর্মকাণ্ড প্রচারণা ও উপস্থাপন না করা এবং সরকার ও দেশের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডবিরোধী কোনো বক্তব্য, সংলাপ, ছবি, কনটেন্ট ব্যবহার না করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এর ব্যত্যয় ঘটলে প্রতিষ্ঠানপ্রধানরা দায়ী বলে বিবেচিত হবেন। অনলাইনে ক্লাস গ্রহণকারী শিক্ষকরা সরকারের আচরণ বিধিমালা অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হবেন। এজন্য তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Facebook Comments