বেসরকারি শিক্ষকদের শতভাগ ঈদ বোনাস ও আর্থিক সহযোগিতা দিতে প্রধানমন্ত্রীকে বাশিস এর চিঠি

7729

বেসরকারি শিক্ষকদের শতভাগ ঈদ বোনাস ও আর্থিক সহযোগিতা দিতে প্রধানমন্ত্রীকে বাশিস এর চিঠি

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শিক্ষকদের ২৫% ঈদ বোনাস নিয়ে সম্প্রতি তুমুল আলোচনা-সমালোচনা চলছে। বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের সরকারি স্কুলে কর্মরত এবং মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মত শতভাগ ঈদ বোনাসের দাবিতে মানববন্ধন করেন বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি।৩০ এপ্রিল ২০২০ বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির মহাসচিব জনাব মোঃ মেজবাহুল ইসলাম প্রিন্স ও সভাপতি জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম রনি স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে প্রধানমন্ত্রীর নিকট শিক্ষকদের শতভাগ ঈদ বোনাস ও বিশেষ আর্থিক সহযোগিতার আবেদন করে একটি আবেদন পত্র প্রেরণ করেন।

——————————————————————-

📌📌শিক্ষা সম্পর্কিত খবরাখবর জানতে এখানে ক্লিক করে শিক্ষা গ্রুপে ঢুকে JOIN GROUP এ  ক্লিক করুন।গ্রুপে আপনিও শেয়ার করুন…

——————————————————————-

👉👉দৈনন্দিন শিক্ষা সম্পর্কিত খবরাখবর পেতে এখানে ক্লিক করে দৈনিক শিক্ষা সংবাদ পেইজে ঢুকে ” LIKE PAGE ” 👍 এ লাইক দিন

——————————————————————-

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শিক্ষক কর্মচারীদের
দুর্দশার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেসশিক্ষকদের শতভাগ ঈদ বোনাস এবং বিশেষ আর্থিক। প্রণোদনা দেওয়ার আবেদন জানান কমিটি।।আপনাদের সুবিধার্থে চিঠিতে এখানে দেওয়া হল।

বরাবর

তারিখঃ ৩০/০৪/২০২০

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মহোদয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়,তেজগাঁও, ঢাকা।

বিষয় ! এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের ২৫% ঈদ বােনাসের পরিবর্তে সরকারী নিয়মে শতভাগ ঈদ বােনাস প্রদানসহ শিক্ষকদেরকে বিশেষ আর্থিক সহযােগিতা প্রদান প্রসঙ্গে।

জনাব,

আপনাকে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি ও এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ লিয়াজো ফোরামের” পক্ষ থেকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। প্রথমেই আপনাকে ধন্যবাদ জানাই নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীদের এমপিও ছাড়করণের প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করায় আপনার অবগতির ও সুবিবেচনার জন্য জানাচ্ছি যে, আমরা এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা দীর্ঘ ১৬ বছর ধরে মাত্র ২৫% ঈল বােনাস পেয়ে আসছি। যা দিয়ে শিক্ষকরা ঈদের সময় তাদের স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ঈদের আনন্দ উপভােগ করতে পারে না। ঈদের সময় তাদের মনে কোন আনন্দ থাকে না।

হে মানবতার মা,

আপনার অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে, বিগত ২২/০১/২০০৪ সালে শিক্ষামন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে এমপিওভুক্ত শিক্ষক জন্য ২৫% এবং কর্মচারীদের জন্য ৫০% ঈদ বােনাস প্রদান করা হলেও দীর্ঘ ১৬ বছরে এর কোন পরিবর্তন নেই। এছাড়া এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের মাত্র ১০০০ টাকা বাড়ি ভাড়া, ৫০০ টাকা চিকিৎসা ভাতা। বর্তমানে শিক্ষকরা করােনার প্রভাবে গৃহবন্দী। তাদের বেতন ছাড়া অন্য কোন আয়-রোজগার নেই। বর্তমানে এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীগণ মারাত্মক অর্থকষ্টে দিনযাপন করছেন। শিক্ষকদের অর্থকষ্টের কথা আপনি ছাড়া কাউকে বলতেও পারছেন না। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ। এ অবস্থা দীর্ঘদিন চলতে থাকলে এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের অর্থকষ্ট আরাে প্রকট আকার ধারণ করবে এবং শিক্ষাও ধ্বংসের মুখোমুখি হবে। এ অবস্থায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আসন্ন ঈদুল ফিতরের পর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সীমিত আকারে ক্লাস চালু করা যায় কিনা আপনি ভেবে দেখবেন।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক। দেশ গঠনে আমরা সর্বদা আপনার পাশে আছি। আপনার যে কোন নির্দেশ পালনে আমরা সদা প্রস্তুত। শিক্ষকরা আপনার নির্দেশে বর্তমানে কৃষকদের পাশে থেকে পাকা ধান কাটায় সহযােগিতা করছেন। কিন্তু এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বর্তমান আর্থসামাজিক অবস্থা চরম পর্যায়ে। এসময়ে তারা অর্থের অভাবে মানবেতন জীবন যাপন করছেন। আপনি বিশ্ব মানবতার মা- আপনি ছাড়া শিক্ষকদের পাশে দাঁড়ানাের আর কেউ নেই।

তাই অবিলম্বে আসন্ন ঈদুল ফিতরের পূর্বেই ২৫% ঈদ বােনাসের পরিবর্তে সরকারী নিয়মে শতভাগ ঈদ বােনাস প্রদানসহ শিক্ষকদের জন্য বিশেষ আর্থিক সহযােগিতা প্রদান করার প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা নিলে আপনার নিকট চিরকৃতজ্ঞ থাকবে।

আপনার বিশ্বস্ত:

মােঃ মেজবাউল ইসলাম প্রিন্স
মহাসচিব
বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি।

মােঃ নজরুল ইসলাম রনি
সভাপতি,
বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি ও
মুখপাত্র এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ লিষ্টাজো ফোরাম।
মোবাইল নং- ০১৭১২-৮৭৩১৬৯

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Facebook Comments