মায়ের মোবাইলের এসএমএস অনুসরণ করে পড়বে প্রাইমারী শিক্ষার্থীরা

776

মায়ের মোবাইলের এসএমএস অনুসরণ করে পড়বে প্রাইমারী শিক্ষার্থীরা

নিজস্ব সংবাদদাতা : করোনাভাইরাসের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটিআগামী ৯ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়িয়েছে সরকার। এ লম্বা সময় শিক্ষার্থীদের বিকল্প পদ্ধতিতে শিক্ষার্থীদেরপা ঠদান করতে বিভিন্ন উপায় খুঁজছে শিক্ষা এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।২৮মার্চ থেকে ৬ষ্ঠ থেকে ১০ শ্রেণি পর্যন্ত সংসদ টেলিভিশনের মাধ্যমে রেকডিং ক্লাসপ্রচার করবে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর। একই পদ্ধতিতে ক্লাস করানোর কথা ভেবেও শেষ পর্যন্ত পিছু হটেছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।
মাধ্যমিক পর্যায়ের মতো টেলিভিশনের মাধ্যমে ক্লাস করানো প্রাথমিক পর্যায়ে কঠিন। কারণ এটা করতে হলে সবার বাসায় টেলিভিশন, ডিশ লাইন এবং বিদ্যুৎ সংযোগ থাকা বাঞ্ছনীয়। কিন্তু মফস্বলের অনেক এলাকা এ তিনটির কোনটিই নেই। তাই প্রাথমিক পর্যায়ে এ পদ্ধতি অনুসরণ করা ঠিক হবে।

নিয়মিত পড়ালেখা চালিয়ে যেতে প্রাথমিকে অধ্যয়নরত ১ কোটি ৪০ লাখ শিক্ষার্থীর মায়ের মোবাইলে ইউনিক এসএমএস (খুদেবার্তা) পাঠানো হবে। এ বার্তায় শিশুদের ঘরের বাইরে বের না হওয়া, শিশুদের স্বাস্থ্যের প্রতি যত্নবাদ হওয়ার মতো কিছু নির্দেশনা থাকবে। আগামী সপ্তাহে এই এসএমএম পাঠানো হতে পারে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. ফসিউলস্নাহ।

তিনি বলেন এ পর্যন্ত বিদ্যালয়ে যা পড়ানো হয়েছে, যা পড়ানোর কথা ছিল তা বন্ধের মধ্যে মায়েদের তত্ত্বাবধানে ছাত্রছাত্রীদের পড়ালেখা চালিয়ে যেতে বলা হবে। এই এসএমএস’টি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে পাঠাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Facebook Comments