মোবাইল ব্যাংকিং চালু না করে শিক্ষকদের স্ব-স্ব ব্যাংক হিসাবে মাসের ১ তারিখে বেতন-ভাতা দিন

963

মোবাইল ব্যাংকিং চালু না করে শিক্ষকদের স্ব-স্ব ব্যাংক হিসাবে মাসের ১ তারিখে বেতন-ভাতা দিন

এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষকদের বেতন-ভাতা মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে প্রদানের সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে শিক্ষামন্ত্রণালয়। এ বিষয়ে দেশের পাঁচ লক্ষাধিক শিক্ষক কর্মচারীরা ক্ষোভের সঙ্গে ভিন্নমত প্রকাশ করেছেন। তাদের দাবি শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণের মাধ্যমে রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে নিজ নিজ ব্যাংক হিসাবে বেতন-ভাতা দিতে হবে।

মোবাইল ব্যাংকিং চালু করা হলে, বিভিন্ন বঞ্চনা বৈষম্যে আকন্ঠ নিমজ্জিত এমপিওভুক্ত শিক্ষক কর্মচারীরা নতুনভাবে ভোগান্তির শিকার হবেন। পরিবারের অভাব অনটন, সন্তানদের শিক্ষা, বিয়ে ও বাসস্থানের জমি ক্রয় এবং নির্মাণে সমস্যাগ্রস্থ শিক্ষকরা ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে থাকেন। মোবাইল ব্যাংকিং চালু হলে, ব্যাংকগুলো শিক্ষকদের দুঃসময়ে ব্যাংক ঋণ দিবে না। এছাড়াও বিশেষ সময়ে পরিবারের ভরণপোষণে অগ্রিম ব্যাংকের চেক বিক্রি করে সমস্যার সমাধান করতে পারেন শিক্ষক কর্মচারীরা। প্রতি হাজারে ২০ টাকা সার্ভিস চার্জ শিক্ষকদেরকেই দিতে হবে। মোবাইল ব্যাংকিং চালু করা হলে বিভিন্নভাবে হয়রানি ও বিরম্বনায় পরতে হবে শিক্ষক কর্মচারীদের।

উপরোক্ত যৌক্তিক কারণেই সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে মোবাইল ব্যাংকিং চালু না করে শিক্ষকদের স্ব-স্ব ব্যাংক হিসাবে বেতন-ভাতা মাসের ১ তারিখে প্রদানের পদক্ষেপ নিতে হবে। করোনা মহামারীতে ইতিমধ্যেই শিক্ষাব্যবস্থার ব্যাপক ক্ষতিসাধন হয়েছে। তদুপরি বিভিন্ন বৈষম্যের শিকার শিক্ষক কর্মচারীরা যৌত্তিক দাবি আদায়ে রাজপথে দাঁড়াবে এটি কখনো কাম্য হতে পারে না। শিক্ষা ব্যবস্থার জাতীয়করণ সকল সমস্যার সমাধান।

মোঃ সাইদুল হাসান সেলিম
সভাপতি
বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারী ফোরাম

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Facebook Comments