সরকারি কলেজ স্বাধীনতা শিক্ষক সমিতি’র ভার্চুয়াল শোক সভা অনুষ্ঠিত

513

সরকারি কলেজ স্বাধীনতা শিক্ষক সমিতি’র ভার্চুয়াল শোক সভা অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৫তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ৩১ আগস্ট রাত ৯ টায় সরকারি কলেজ স্বাধীনতা শিক্ষক সমিতি (সকস্বাশিস) কর্তৃক ‘শোকাবহ আগস্ট, শোকার্ত বাংলাদেশ’ শিরোনামে এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা থেকে জাতির পিতার বর্ণাঢ্য জীবন নিয়ে আলোচনা করে ১৫ আগস্ট জাতির পিতাসহ পরিবারের ১৮জন সদস্যের নৃশংস হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও ঘৃণা জানানো হয়। পাশাপাশি এই নারকীয় হত্যাকাণ্ডের সাথে সম্পৃক্ত যাদের শাস্তি এখনো কার্যকর হয়নি তাদের শাস্তি দ্রুত কার্যকরের জন্য সরকারের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়।

সংগঠনের সভাপতি ড. মোস্তফা আনোয়ারের সভাপতিত্বে এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মো. শরীফ উদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত এ সভায় মুখ্য আলোচক হিসেবে অংশ নেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. বশির উল্লাহ। শোক দিবসের আলোচনায় আলোচক হিসেবে অংশ নেন সংগঠনের নির্বাহী সভাপতি মোফাচ্ছের হোসাইন (জীবন)। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে আলোচনায় আরো অংশগ্রহণ করেন মো. ওবায়দুল হক খান, আব্দুল মুমিত চৌধুরী, অজিত কুমার দে, শেখ এ টি এম আজরফ, হিরন্ময় দেব। কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কমল কান্তি রায়, আনোয়ার হোসেন, বনানী চক্রবর্ত্তী, আবু জাফর মুহাম্মদ সালেহ, বীরেন্দ্র কুমার দে, মুহাম্মদ শাহাদৎ হোসেন, উল্লাসীনি সরকার, ফয়সাল হাবিব, সঞ্জিত কুমার সাহা রায়, সঞ্জয় চন্দ্র দাস, আলীয়া রওশন রোজী প্রমুখ।

মুখ্য আলোচক ড. বশির উল্লাহ বলেন, “এইভাবে সমগ্র স্বপরিবারে যে যেখানে আছে সকল আত্মীয়-স্বজন সবাইকে, গোটা পরিবারকে যেভাবে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছে এমন নজির বিশ্বের বুকে আর নেই। ফলে এই জঘন্যতম হত্যার আমরা আজকের এইদিনে আজকের আয়োজনে ধিক্কার জানাচ্ছি। আশা করি সরকারি কলেজ স্বাধীনতা শিক্ষক সমিতির মতো আদর্শিক সংগঠনের বিজ্ঞ শিক্ষকগণ শিক্ষার্থীদের কাছে ইতিহাসের সত্য ঘটনা তুলে ধরবেন।”

তিনি আরো বলেন, ” আমরা চাই যে, আপনাদের মতো সংগঠন, আপনাদের মতো শিক্ষকেরা এগিয়ে যাবেন। আপনারা শিক্ষার আলোকে আলোকিত করবেন। আজকে কেউ আমরা দুর্নীতি করব না, কাউকে আমরা দুর্নীতি করতে দেবোনা এই প্রত্যয় ব্যক্ত করছি।”

সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ তাঁদের বক্তৃতায় শিক্ষাক্ষেত্রে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর বিভিন্ন কৃতিত্ব তুলে ধরেন ও তাঁর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক প্রতিটি উপজেলায় একটি করে কলেজ সরকারি করায় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এর সাথে সাথে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে এডহক নিয়োগের কাজ সম্পন্নের আহ্বান জানান তারা। সবশেষে ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তাঁর পরিবারবর্গের শাহাদাতবরণকারী সদস্যদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Facebook Comments